গর্তের ভেতর নিথর মৌ, পেটের বাইরে নাড়ি-ভুঁড়ি - Vikaspedia

গর্তের ভেতর নিথর মৌ, পেটের বাইরে নাড়ি-ভুঁড়ি

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে বাড়ির পেছনের একটি গর্ত থেকে এক শিশুর গলাকাটা ও ক্ষতবিক্ষত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার রাতে ঐ উপজেলার শমশেরনগর ইউনিয়নের কেছুলুটি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
নিহত শিশু ফাতেমা জান্নাত মৌ ঐ গ্রামের ফরিদ মিয়ার মেয়ে।

এ ঘটনায় মামলা হয়েছে। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন সিনিয়র এএসপি (শ্রীমঙ্গল সার্কেল) শহীদুল হক মুন্সী। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে পুলিশ, র‍্যাব, পিবিআই, সিআইডিসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা ঘটনার রহস্য উদঘাটনে তৎপর রয়েছেন।

জানা গেছে, বুধবার বিকেল ৫টার দিকে নিখোঁজ হয় শিশু মৌ। সন্ধ্যা ৭টার দিকে তাদের ঘরের পেছনের একটি ছোট মাটির গর্তে তার গলাকাটা ও ক্ষতবিক্ষত অবস্থায় লাশ পাওয়া যায়। খবর পেয়ে ঘটনাটি শমশেরনগর পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক (তদন্ত) মোশারফ হোসেন ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার ও সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করেন। বৃহস্পতিবার সকালে লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

এ ঘটনায় নিহত মৌয়ের মা রুবি আক্তার বৃহস্পতিবার সকালে কমলগঞ্জ থানায় হত্যা মামলা করেছেন। হত্যাকাণ্ডের রহস্য উদঘাটনে কাজ করছে পুলিশ, পিবিআই, র‍্যাব, সিআইডি।

নিহতের বাবা ফরিদ মিয়া বলেন, আমার অবুঝ সন্তানকে যারা নির্মমভাবে হত্যা করেছে তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই। এভাবে যেন আর কোনো বাবার কোল শূন্য না হয়।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা শমশেরনগর পুলিশ ফাঁড়ির এসআই সোহেল রানা বলেন, সুনির্দিষ্ট কারো সংশ্লিষ্টতা এখনো পাওয়া যায়নি, তবে পারিবারিক বিরোধের কারণে এ হত্যাকাণ্ড ঘটতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে খতিয়ে দেখা হচ্ছে। জড়িত কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না।