বিষয়টি এখন দেশবাসীর মেনে নেওয়া উচিত: জেলেনস্কি - Vikaspedia

বিষয়টি এখন দেশবাসীর মেনে নেওয়া উচিত: জেলেনস্কি

ইউক্রেন-রাশিয়ার যুদ্ধপরিস্থিতি এখনও কোনো সমাধানের মুখ দেখেনি। ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসনের ২০দিন পার হয়ে গেল। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে পরিস্থিতি আরও জটিল হচ্ছে।

প্রায় ৩ সপ্তাহে প্রাণ বাঁচাতে ২৮ লাখের ইউক্রেনীয় পালিয়ে বিভিন্ন দেশে আশ্রয় নিয়েছেন। এরই মধ্যে রুশ বাহিনীর বোমা হামলায় ধ্বংসস্তুপে পরিণত ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভে ও গুরুত্বপূর্ণ শহর মারিওপোল। এদিকে সহযোগী দেশ হয়েও ন্যাটোর কাছ থেকে আশানুরুপ সহযোগিতা না পেয়ে হতাশ ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি।

পশ্চিমারা আশ্বাস দিয়েও যুদ্ধ সহায়তা না পাঠানোয় ন্যাটো থেকে মুখ ফিরিয়ে নেওয়ার চূড়ান্ত ইঙ্গিত দিয়েছেনে তিনি। তাই ন্যাটোতে ইউক্রেনের যোগ দিতে না পারার বিষয়টি দেশটির মেনে নেওয়া উচিত বলে মনে করেন প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি।

মঙ্গলবার ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সামরিক কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলাপকালে জেলেনস্কি বলেন, ইউক্রেন ন্যাটোর সদস্য না। আমরা এটা বুঝতে পারছি। আমরা অনেক বছর ধরেই শুনছি ন্যাটোর দরজা খোলা আছে। কিন্তু আমরা এটাও শুনেছি যে ওই দরজা দিয়ে আমরা ঢুকতে পারবো না। এটা সত্য এবং এটা অবশ্যই স্বীকৃত। আমাদের জনগণ এটা বুঝতে শুরু করায় তাদের প্রতি আমি কৃতজ্ঞ।

তিনি আরো বলেন, (ন্যাটোয় যুক্ত না হতে পারলে) তাহলে আমাদের ওই সংঘটনের সঙ্গেই এক হয়ে আমরা কাজ করতে পারি। যেটি আমাদের সাহায্য করবে। আমাদের রক্ষা করবে এবং আলাদাভাবে নিরাপত্তার নিশ্চয়তা দেবে। আমাদের যথেষ্ট জনশক্তি রয়েছে। এদিকে যে সংঘটনের ব্যাপারে জেলেনস্কি ইঙ্গিত দিয়েছেন সেটি হতে পারে রাশিয়ার সঙ্গে নিরাপত্তা চুক্তি। সূত্র: বিবিসি, রয়টার্স