বিয়েপাগল স্বামী শাফায়াতুল্লাহ, তৃতীয় স্ত্রীসহ গেলেন কারাগারে - Vikaspedia

বিয়েপাগল স্বামী শাফায়াতুল্লাহ, তৃতীয় স্ত্রীসহ গেলেন কারাগারে

বরগুনার তালতলী উপজেলায় যৌতুকের দাবিতে দ্বিতীয় স্ত্রীকে নির্যাতনের অভিযোগে করা মামলায় স্বামী ও তৃতীয় পক্ষের স্ত্রীকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

বুধবার সকালে রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি (পিপি) মোস্তাফিজুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এর আগে মঙ্গলবার (৮ মার্চ) দুপুরে বরগুনার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. হাফিজুর রহমান এ আদেশ দেন।

আসামিরা হলেন, তালতলী উপজেলার শারিকখালী ইউনিয়নের চাউলাপাড়া এলাকার গোলাম মোস্তফার ছেলে মো. শাফায়াতুল্লাহ ও তার তৃতীয় পক্ষের স্ত্রী সাদিয়া।

জানা গেছে, দ্বিতীয় পক্ষের স্ত্রী খাদিজা গত বছর ১৫ ডিসেম্বর বাদী হয়ে বরগুনার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে মামলা করেন। মামলায় অভিযোগ করেন, তৃতীয় পক্ষের স্ত্রী সাদিয়ার সহায়তায় স্বামী শাফায়াতুল্লাহ প্রায় ২ লাখ টাকা যৌতুক দাবি করে তাকে শারীরিক নির্যাতন করেন। পরে হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে আদালতে মামলা করেন তিনি।

মামলার বাদী খাদিজা বলেন, আমার স্বামী আগেও একটি বিয়ে করেছিলেন। প্রথম পক্ষের স্ত্রী যৌতুক দিতে না পারায় নির্যাতন করে তাকে তাড়িয়ে দেন। আমাকে বিয়ে করার পর সাদিয়াকে বিয়ে করেন। শাফায়াতুল্লাহ যৌতুকলোভী ও বিয়েপাগল। বারবার বিয়ে করেন শুধু যৌতুকের লোভে। তার মতো পুরুষের কঠিন শাস্তি হওয়া উচিত।

আসামিপক্ষের আইনজীবী মো. জহিরুল হক নান্না বলেন, তৃতীয় পক্ষের স্ত্রী দ্বিতীয় পক্ষের স্ত্রীর কাছে যৌতুক চাওয়ার বিষয়টি বিশ্বাসযোগ্য নয়। আমরা আদালতে জামিনের আবেদন করবো।

এ বিষয়ে রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি (পিপি) মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, শাফায়াতুল্লাহ বিয়েপাগল শ্রেণির পুরুষ। এদের সমুচিত শিক্ষা হওয়া দরকার ছিল।