শ্রীলঙ্কায় চালের কেজি ৫০০ টাকা ! - Vikaspedia

শ্রীলঙ্কায় চালের কেজি ৫০০ টাকা !

ক্রমবর্ধমান তীব্র অর্থনৈতিক সংকটে অনেকটাই নুয়ে পড়েছে এশিয়ার দ্বীপ রাষ্ট্র শ্রীলঙ্কা। খাদ্য সংকট ক্রমেই গভীর হচ্ছে। নিত্যদিনের জিনিসপত্রের দাম আকাশছোঁয়া হতে শুরু হয়েছে। বর্তমানে প্রতি কেজি চালও কিনতে হচ্ছে ৫০০ টাকা দরে। দুমুঠো খেয়ে বাঁচতে শ্রীলঙ্কার মানুষের ভরসা এখন ভারত। মঙ্গলবার ১৬ জন শ্রীলঙ্কাবাসি সমুদ্রপথে ভারতে পৌঁছেছেন।

দেশটি থেকে ভারতে যাওয়া শরণার্থীরা জানিয়েছেন সেখানে চাল প্রতি কেজিতে শ্রীলঙ্কার মুদ্রায় ৫০০ টাকা অবধি পৌঁছেছে। ৪০০ গ্রাম পাউডার দুধের দাম ৭৯০ টাকা। এক কেজি চিনির দাম ২৯০ টাকা। ১৯৮৯ সালে গৃহযুদ্ধের সময় যেভাবে মানুষ পালাতো এবারেও সেই পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এ অবস্থা চলতে থাকলে ১৯৮৯ সালের গৃহযুদ্ধের মতো পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে সে দেশে। পরিস্থিতি এতটাই খারাপ যে, এর কারণে অভিবাসন বৃদ্ধির সম্ভাবনা রয়েছে। শ্রীলঙ্কার ওপর চীনসহ অনেক দেশের ঋণ ক্রমাগত বাড়ছে। বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভও ৭০ শতাংশ কমে ২.৩৬ বিলিয়ন ডলারে নেমে এসেছে। ২০২১ সালের জুলাইয়ে শ্রীলঙ্কার বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ মাত্র ২.৮ বিলিয়ন ডলারে ঠেকেছিল। গত বছরের নভেম্বর নাগাদ মাসে শ্রীলঙ্কার বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ আরও কমে ১.৫৮ বিলিয়ন ডলারের স্তরে পৌঁছে যায়।

দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের খবর অনুযায়ী, তামিলনাড়ু পুলিশ জানিয়েছে শ্রীলঙ্কায় গভীর সংকট তৈরি হয়েছে। তাই দেশটির শরণার্থীরা ভারতে ঢুকছে। শ্রীলঙ্কার উত্তরদিকে তামিল প্রভাবিত এলাকা রয়েছে। তামিলনাড়ু ইন্টেলিজেন্সের সূত্র মতে এটা শুধুমাত্র সূচনা। এখনও ওখান থেকে অনেক মানুষ আসবেন। ইন্টেলিজেন্সের তথ্য অনুযায়ী, খুব তাড়াতাড়ি আরও ২০০০ শ্রীলঙ্কান শরণার্থী ভারতে ঢুকবেন। শ্রীলঙ্কার কাছে বিদেশি মুদ্রার ভাণ্ডার শেষ হয়ে গেছে। জরুরি সামগ্রী বাইরে থেকে আনার জন্যও উপযুক্ত টাকা নেই দেশটির কাছে।

অর্থনীতিবিদরা উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন যে, ১৯৮৯ সালে গৃহযুদ্ধের সময় যেরকম অভিবাসন ঘটতে দেখা গিয়েছিল সেই একই পরিস্থিতি হতে পারে এবার। শ্রীলঙ্কার কাছে থাকা বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ প্রায় নেই বললেই চলে। বাইরে থেকে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য আনার মতো টাকা দেশে নেই বলে খবর। এ বছর কিস্তিতে ৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলার ঋণ পরিশোধ করতে হবে শ্রীলঙ্কাকে কিন্তু বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ মাত্র দুই বিলিয়নের কাছাকাছি। এমন পরিস্থিতিতে একদিকে যেখানে চীন হাত বাড়িয়েছে, ভারত ১৭ মার্চ এক বিলিয়ন মার্কিন ডলার ঋণ দেবে বলে শ্রীলঙ্কাকে জানিয়েছে।