স্ত্রীর চুল কেটে শ্যালকের বউ নিয়ে উধাও - Vikaspedia

স্ত্রীর চুল কেটে শ্যালকের বউ নিয়ে উধাও

বরগুনার তালতলী উপজেলায় স্ত্রীর কাছে দুই লাখ টাকা যৌতুক চেয়ে না পেয়ে তাকে নির্যাতন করে চুল কেটে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে স্বামীর বিরুদ্ধে।

ওই ব্যক্তি স্ত্রীর ছোট ভাইয়ের বউকে ভাগিয়ে নিয়ে বিয়েও করেছেন।

এ অভিযোগে বুধবার (৮ মার্চ) বরগুনা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে মামলা করেছেন ভুক্তভোগী ওই নারী।
জানা যায়, তালতলী উপজেলার ছোট ভাইজোড়া গ্রামের শাহ আলমের ছেলে ইয়ামিনের সঙ্গে একই উপজেলার দক্ষিণ সওদাগার পাড়া গ্রামের এক নারীর সঙ্গে ২০০৭ সালে বিয়ে হয়। তাদের দুইটি সন্তানও আছে। একপর্যায়ে ইয়ামিন শ্যালক নিজামের স্ত্রীকে নিয়ে কয়েক মাস আগে উধাও হয়ে বিয়ে করে।

সোমবার (৭ মার্চ) দুপুরে বাদীর ইয়ামিন তার বাবা শাহ আলম ও শ্যালকের বউ দুই লাখ টাকা যৌতুক দাবি করে ভুক্তভোগী নারীর কাছে।

ওই যৌতুক দিতে অস্বীকার করলে তাকে বেধড়ক মারধর করেন ইয়ামিন। একপর্যায়ে ইয়ামিন একটি ধারালো দা দিয়ে ওই নারীর মাথার চুল কেটে দেয়।

ভুক্তভোগী নারী বলেন, স্বামী আমাকে মারধর করে মাথার চুল কেটে দিয়েছেন। আমার আপন ভাইয়ের স্ত্রীকে নিয়ে অবৈধভাবে থাকেন ইয়ামিন। আমি বরগুনা হাসপাতালে মঙ্গলবার (৮ মার্চ ) চিকিৎসা নিয়ে তালতলী থানায় মামলা করতে গেলে থানা মামলা নেয়নি।

ট্রাইব্যুনালের বিচারক ও জেলা জজ মো. হাফিজুর রহমান মামলাটি গ্রহণ করে তালতলী উপজেলার তালুকদার পাড়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককে ৭ দিনের মধ্য অনুসন্ধান প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন।

আসামি ইয়ামিন বলেন, বাদীর ঘটনা সত্য নয়। তবে শ্যালকের বউকে বিয়ে করেছি এবং তার সন্তানও লালন পালন করি।

তালতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) রফিকুল ইসলাম বলেন, মামলা করতে আসেনি কেউ। মামলা করতে এলে আমরা অবশ্যই মামলা নিতাম।