১১টি রাজনৈতিক দলকে নিষিদ্ধ করলেন জেলেনস্কি - Vikaspedia

১১টি রাজনৈতিক দলকে নিষিদ্ধ করলেন জেলেনস্কি

চলমান ইউক্রেন রাশিয়ার আগ্রাসনের মাঝেই ইউক্রেনের ১১টি রাজনৈতিক দলের কার্যক্রমের ওপর বিধিনিষেধ আরোপ করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। এর মধ্যে বেশ কয়েকটি রাজনৈতিক দলের বিরুদ্ধে রাশিয়ার সঙ্গে সম্পর্কের অভিযোগ আনা হয়েছে। রবিবার (২০ মার্চ) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, শনিবার রাতে প্রকাশ করা ভিডিওবার্তায় রাজনৈতিক দলগুলোর বিরুদ্ধে এই বিধিনিষেধের ঘোষণা দেন জেলেনস্কি। ইউক্রেনীয় প্রেসিডেন্টের নিষিদ্ধ করা রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে সরকার বিরোধী প্লাটফর্ম ‘ফর লাইফ’ও রয়েছে। ইউক্রেনের পার্লামেন্টে দলটির প্রতিনিধি রয়েছে এবং এটি রাশিয়াপন্থি বৃহত্তম ইউক্রেনীয় দলগুলোর মধ্যে একটি।

ইউক্রেনের বিরোধী রাজনৈতিক ব্লকের আরও যেসব দলের বিরুদ্ধে বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে, তাদের মধ্যে রয়েছে- পার্টি অব শারিয়া, আওয়ার্স, লেফট অপোজিশন, ইউনিয়ন অব লেফট ফোর্সেস, স্টেট, প্রোগ্রেসিভ সোশ্যালিস্ট পার্টি অব ইউক্রেন, সোশ্যালিস্ট পার্টি ইউক্রেন, সোশ্যালিস্টস এবং ভ্লাদিমির সালদো ব্লক।

বিবিসি বলছে, প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কির ঘোষণার পর ইউক্রেনের বিচার মন্ত্রণালয় নিষেধাজ্ঞা কার্যকর করার জন্য অবিলম্বে পদক্ষেপ নেবে। শনিবার রাতের ওই ভিডিওবার্তায় জেলেনস্কি বলেছিলেন, যতদিন সামরিক আইন বহাল থাকবে ততদিন পর্যন্ত রাশিয়াপন্থি এই রাজনৈতিক দলগুলোর বিরুদ্ধে এই নিষেধাজ্ঞা বলবৎ থাকবে।

প্রসঙ্গত, তিন সপ্তাহের বেশি সময় থেকে ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসন চলছে। রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিন গত বৃহস্পতিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) সামরিক অভিযান ঘোষণার কয়েক মিনিট পরেই ইউক্রেনে বোমা ও ক্ষেপণাস্ত্র হামলা শুরু করে রুশ সেনারা। এরপর থেকে ইউক্রেন ও রাশিয়ার মধ্যে যুদ্ধ চলছে।চলমান এই যুদ্ধে ইউক্রেনের উপর প্রতিনিয়ত চাপ সৃষ্টি করছে রাশিয়া।ইউক্রেনে চলমান রুশ আগ্রাসনের সর্বত্মক হামালার মুখে জীবন বাঁচাতে ইউক্রেন ছেড়েছেন দেশটির লাখ লাখ নাগরিক। পাশ্ববর্তী দেশ ছাড়াও ইউরোপের বিভিন্ন দেশে আশ্রয় নিচ্ছেন ইউক্রেনীয়রা।

সুত্রঃ বিবিসি